Header Ads

Happy Valentines day 2020


Today is the # 14th of February Love Day. Celebrate your love with your loved one but I think the people in your family can be the nearest and dearest people to you.  Parents are a part of life, so parents observe their parents through love day  .  Maybe many parents do not know what love day is.  Again, many parents also know. Whatever your favorite partner and dearly loved person, you can celebrate the day with love but before that you have to choose who you truly love in your life and mind.


Wikipedia article left
Valentines day History
Numerous early Christian martyrs were named Valentine.[14] The Valentines  honored on February 14 are Valentine of Rome (Valentinus presb. m. Romae) and Valentine of Terni (Valentinus ep. Interamnensis m. Romae).[15] Valentine of Rome was a priest in Rome who was martyred in 269 and was added to the calendar of saints by Pope Gelasius I in 496 and was buried on the Via Flaminia. The relics of Saint Valentine were kept in the Church and Catacombs of San Valentino in Rome, which "remained an important pilgrim site throughout the Middle Ages until the relics of St. Valentine were transferred to the church of Santa Prassede during the pontificate of Nicholas IV".[16][17] The flower-crowned skull of Saint Valentine is exhibited in the Basilica of Santa Maria in Cosmedin, Rome. Other relics are found at Whitefriar Street Carmelite Church in Dublin, Ireland.[18]
Valentine of Terni became bishop of Interamna and is said to have been martyred during the persecution under Emperor Aurelian in 273. He is buried on the Via Flaminia, but in a different location from Valentine of Rome. His relics are at the Basilica of Saint Valentine in Terni (Basilica di San Valentino). Jack B. Oruch states that "abstracts of the acts of the two saints were in nearly every church and monastery of Europe."[19] The Catholic Encyclopedia also speaks of a third saint named Valentine who was mentioned in early martyrologies under date of February 14. He was martyred in Africa with a number of companions, but nothing more is known about him.[20] Saint Valentine's head was preserved in the abbey of New Minster, Winchester, and venerated.[21]
February 14 is celebrated as St. Valentine's Day in various Christian denominations; it has, for example, the rank of 'commemoration' in the calendar of saintsin the Anglican Communion.[11] In addition, the feast day of Saint Valentine is also given in the calendar of saints of the Lutheran Church.[12] However, in the 1969 revision of the Catholic Calendar of Saints, the feast day of Saint Valentine on February 14 was removed from the General Roman Calendar and relegated to particular (local or even national) calendars for the following reason: "Though the memorial of Saint Valentine is ancient, it is left to particular calendars, since, apart from his name, nothing is known of Saint Valentine except that he was buried on the Via Flaminia on February 14."[22]
The feast day is still celebrated in Balzan(Malta) where relics of the saint are claimed to be found, and also throughout the world by Traditionalist Catholics who follow the older, pre-Second Vatican Council calendar.
In the Eastern Orthodox Church, St. Valentine is recognized on July 6, in which Saint Valentine, the Roman presbyter, is honoured; in addition, the Eastern Orthodox Church observes the feast of Hieromartyr Valentine, Bishop of Interamna, on July 30


Bangla version
আজ #১৪ইফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবস।ভালোবাসা দিবস পালন করুন আপনার প্রিয় মানুষটির সাথে কিন্তু আপনার প্রিয় মানুষের মধ্যে সবথেকে আমি মনে করি আপনার পরিবারের লোকজনই হতে পারে সব থেকে কাছের ও প্রিয় মানুষ।তাই আপনার গার্লফ্রেন্ড অথবা বয়ফ্রেন্ডের সাথে ভালোবাসা দিবস থেকে সব থেকে মুক্ত হওয়া এবং মিশে থাকা জীবনের একটি অংশ হল মা বাবা তাই মা-বাবাকে ভালোবাসা দিবসের মধ্যে দিয়ে পালন করেন। হয়তো অনেকের মা-বাবা জানেন না যে ভালোবাসা দিবস কি। আবার অনেকের মা-বাবা জানেও।আপনার প্রিয় সঙ্গী এবং প্রিয় ভালোবাসার মানুষটি যেই হোক না কেন,তার সঙ্গে ভালোবাসা দিবস অবশ্যই পালন করতে পারেন কিন্তু তার আগে তাকে বেছে নিতে হবে আপনার জীবনের এবং মনের মত ভালবাসার একটি মানুষ সত্যি কারের ভালোবাসা কে।

ভালোবাসা দিবসের ইতিহাস
২৬৯ সালে ইতালির রোম নগরীতে সেন্ট ভ্যালেন্টাইন'স নামে একজন খৃষ্টান পাদ্রী ও চিকিৎসক ছিলেন। ধর্ম প্রচারের অভিযোগে তৎকালীন রোম সম্রাট দ্বিতীয় ক্রাডিয়াস তাকে বন্দী করেন। কারণ তখন রোমান সাম্রাজ্যে খৃষ্টান ধর্ম প্রচার নিষিদ্ধ ছিল। বন্দী অবস্থায় তিনি জনৈক কারারক্ষীর দৃষ্টহীন মেয়েকে চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ করে তোলেন। এতে সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের জনপ্রিয়তা বেড়ে যায়। আর তাই তার প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজা তাকে মৃত্যুদণ্ড দেন। সেই দিন ১৪ই ফেব্রুয়ারি ছিল। অতঃপর ৪৯৬ সালেপোপ সেন্ট জেলাসিউও ১ম জুলিয়াস ভ্যালেন্টাইন'স স্মরণে ১৪ই ফেব্রুয়ারিকে ভ্যালেন্টাইন' দিবস ঘোষণা করেন। খৃষ্টানজগতে পাদ্রী-সাধু সন্তানদের স্মরণ ও কর্মের জন্য এ ধরনের অনেক দিবস রয়েছে। যেমন: ২৩ এপ্রিল - সেন্ট জজ ডে, ১১ নভেম্বর - সেন্ট মার্টিন ডে, ২৪ আগস্ট - সেন্ট বার্থোলোমিজম ডে, ১ নভেম্বর- আল সেইন্টম ডে, ৩০ নভেম্বর - সেন্ট এন্ড্রু ডে, ১৭ মার্চ - সেন্ট প্যাট্রিক ডে।

পাশ্চাত্যের ক্ষেত্রে জন্মদিনের উৎসব, ধর্মোৎসব সবক্ষেত্রেই ভোগের বিষয়টি মুখ্য। তাই গির্জাঅভ্যন্তরেও মদ্যপানে তারা কসুর করে না। খৃস্টীয় এই ভ্যালেন্টাইন দিবসের চেতনা বিনষ্ট হওয়ায় ১৭৭৬ সালে ফ্রান্স সরকার কর্তৃক ভ্যালেইটাইন উৎসব নিষিদ্ধ করা হয়। ইংল্যান্ডে ক্ষমতাসীন পিউরিটানরাও একসময় প্রশাসনিকভাবে এ দিবস উদযাপন নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। এছাড়া অস্ট্রিয়া, হাঙ্গেরি ও জার্মানিতেবিভিন্ন সময়ে এ দিবস প্রত্যাখ্যাত হয়। সম্প্রতি পাকিস্তানেও ২০১৭ সালে ইসলামবিরোধী হওয়ায় ভ্যালেন্টাইন উৎসব নিষিদ্ধ করে সেদেশের আদালত।বর্তমানকালে, পাশ্চাত্যে এ উৎসব মহাসমারোহে উদযাপন করা হয়। যুক্তরাজ্যে মোট জনসংখ্যার অর্ধেক প্রায় ১০০ কোটি পাউন্ড ব্যয় করে এই ভালোবাসা দিবসের জন্য কার্ড, ফুল, চকোলেট, অন্যান্য উপহারসামগ্রী ও শুভেচ্ছা কার্ড ক্রয় করে এবং আনুমানিক প্রায় ২.৫ কোটি শুভেচ্ছা কার্ড আদান-প্রদান করা হয়।

শুভ হোক আপনার জীবন এবং আপনার দিনগুলো
♥️♥️Happy Valentines day♥️♥️
🚩সংগৃহীত
🚩ভালোবাসা দিবসের ইতিহাস উইকিপিডিয়া থেকে সংগৃহীত।